বিশ্বের একমাত্র ’কোরআনিক ভিলেজ’ তৈরি হচ্ছে মালয়েশিয়ায়

প্রকাশিত: ৫:৩৫ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ১৩, ২০২১

পর্যটন নগরী মালয়েশিয়া এবার তৈরি করতে যাচ্ছে বিশ্বের একমাত্র ’কোরআনিক ভিলেজ’ । প্রকল্পটি বাস্তবায়নে ব্যয় হবে প্রায় ১৫শ মিলিয়ন মালয়েশিয়ান রিঙ্গিত । প্রায় ২০ একর জায়গা জুড়ে তৈরি হবে এই মেগা প্রকল্প ।

শুক্রবার ( ৩০ অক্টোবর ) মেগা প্রকল্পটির নকশা উন্মোচন হওয়ার পর মালয়েশিয়ার ফেডারেল টেরিটরিমন্ত্রী তান সেরী আনোয়ার মুসা তার ভেরিফায়েড ফেসবুক ও টুইটারে এক বার্তায় বলেন, “ধন্যবাদ সৃষ্টিকর্তা, কোরআনিক ভিলেজ এর নকশা চূড়ান্ত । সরকার ইতিমধ্যে প্রকল্পটিতে নীতিগতভাবে সরকার অনুমোদন করেছে। ২০২১ সালে এর কাজ শুরু হবে বলে জানিয়েছেন তিনি । এটি মুসলিম বিশ্বের একমাত্র প্রকল্পটি মালয়েশিয়ার পথিকৃৎ হোক বলেও লিখেন টুইট বার্তায় তান সেরী আনোয়ার ।

প্রকল্পটি বাস্তবায়ন হলে সেখানে থাকবে, ৫ হাজার মুসল্লীর ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন একটি নতুন মসজিদ, একটি কুরআন বিজ্ঞান ও ভবিষ্যদ্বাণীমূলক জীবনী কেন্দ্র, একটি ছাত্রাবাস এবং অনুষ্ঠান আয়োজনের স্থান, একটি বাজার এবং একটি শিল্পকলা কেন্দ্র । এবং এটি হবে বিশ্বের একমাত্র কোরআনিক ভিলেজ ।

কোরআনিক ভিলেজটি যথাক্রমে মালয়েশিয়া, কুয়েত, ইরাক, তুরস্ক, সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং ব্রুনাইয়ের জন্য উৎসর্গীকৃত বলে জানিয়েছেব মন্ত্রী আনোয়ার মুসা।

প্রবাস বার্তা