ইভ্যালির সার্ভার সচল করতে পাওনা ৬ কোটি টাকা চায় অ্যামাজন

প্রকাশিত: ৬:৫৫ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১, ২০২২

ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির সার্ভার সচল করতে পাওনা ৬ কোটি টাকা চেয়েছে অ্যামাজন। সার্ভার দেখভালের দায়িত্বে থাকা অ্যামাজন তাদের পাওনা টাকা বুঝে না পাওয়া পর্যন্ত সেটি সচল করবে না। আর সার্ভার চালু না হলে অডিট করা সম্ভব হবে না। এতে জানা যাচ্ছে না, ঠিক কী পরিমাণ গ্রাহকের পণ্য ও টাকা আটকে রয়েছে।

সোমবার (৩১ জানুয়ারি) বিকেলে ইভ্যালির লকার ভাঙার পর প্রতিষ্ঠানটির পরিচালনার দায়িত্বে থাকা বোর্ড চেয়ারম্যান ও আপিল বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি এ এইচ এম শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানান।

তিনি বলেন, অ্যামাজনের সঙ্গে এ নিয়ে দর-কষাকষি চলছে। তারা বলেছে, ইভ্যালির কাছে তারা ৬ কোটি টাকা পায়। আমরা চেষ্টা করছি অ্যামাজনের মাধ্যমেই ইভ্যালির সার্ভারটি চালু করতে।

তিনি আরও বলেন, বিকাশ, নগদ ও রকেটসহ পাঁচটি ব্যাংকের গেটওয়েতে ২৬ কোটি টাকা আটকে আছে। এর মধ্যে রকেটের ৫ কোটি ৯২ লাখ টাকা রেডি। হাইকোর্টের নির্দেশনা পেলে আমরা রিফান্ড করতে পারব।

শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক বলেন, ইভ্যালির ২৪টি গাড়ির সন্ধান পাওয়া গেছে। তার মধ্যে ১৬টি গাড়ি হাতে এসেছে। আমরা ৬টি গাড়ি নিলামে বিক্রি করব এবং বাকিগুলো ভাড়ায় চালানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে।

ইভ্যালির টাকা ও সম্পদের পরিমাণ জানতে হলে রাসেল ও তার স্ত্রীর নামে ব্যাংকে কত টাকা ও সম্পদ রয়েছে তা জানা প্রয়োজন বলেও জানান তিনি। সূত্র: আরটিভি নিউজ